জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৩৮দিন
:
০৮ঘণ্টা
:
০২মিনিট
:
৩৬সেকেন্ড
নোভেল কোভিডে মৃত ব্যক্তির দাফনে কেউ নেই, করোনা যোদ্ধার ভূমিকায় আলাবক্স তাহের টিটু - Daily Noakhali Somoy

নোভেল কোভিডে মৃত ব্যক্তির দাফনে কেউ নেই, করোনা যোদ্ধার ভূমিকায় আলাবক্স তাহের টিটু

1 min read
53 Views

সেন্ট্রাল ডেক্স, দৈনিক নোয়াখালী সময় ডট কম: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে করোনায় মৃত সহিদ উল্যাহ ভূঁইয়ার দাফনে আসলেন না আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশী কেউই। অবশেষে মরদেহ গোসল দিয়ে দাফন করলেন কবিরহাট পৌরসভার সাবেক মেয়র ও নোয়াখালী জেলা পরিষদের সাবেক মেম্বার আলাবক্স তাহের টিটু।স্থানীয়রা জানান, কোম্পানীগঞ্জের সিরাজপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ভূঁইয়া বাড়ির সহিদ উল্যাহ রোববার (১৮ জুলাই) রাতে নোয়াখালী করোনা হাসপাতালে মারা যান। সোমবার (১৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় জানাযার সময় ছিল। সকাল ৯টা পর্যন্ত এই মরদেহের গোসল বা দাফন করতে কেউ এগিয়ে আসেননি। এমনকি স্থানীয় হুজুর মরদেহের জানাজা পড়াতে অপারগতা প্রকাশ করেন।খবর পেয়ে কবিরহাট পৌরসভার সাবেক মেয়র আলাবক্স তাহের টিটু তার সাত সদস্যের দল নিয়ে মরদেহ গোসল করান। পরে বেলা সাড়ে ১১টায় জানাযা শেষে দাফন করেন তাকে। জানাজা পড়ান ওই দলের সদস্য মাওলানা শরিয়ত উল্যাহ।আলাবক্স তাহের টিটু বলেন, ‘এটি আমার ২৬ নম্বর করোনার মরদেহ দাফন। যেখানে দাফনের কেউ থাকে না সেখানেই আমি আমার দল নিয়ে ছুটে যাই। কিন্তু কোম্পানীগঞ্জে চরম অভিজ্ঞতা হল। একজন মানুষ মারা গেল। তার পাশে কেউ এলো না। আত্মীয় স্বজন, বাড়ির লোক, প্রতিবেশী, জনপ্রতিনিধি কেউ আসলেন না। এমনকি এলাকার হুজুরও আসলেন না।’ তিনি আরও বলেন, ‘অসহায় মরদেহগুলো কবরে রাখা এখন আমার দায়িত্ব মনে করেই করছি। নিহত সহিদ উল্যাহর তিন ছেলের সবাই বিদেশে। কিন্তু তার এই অন্তিম মুহূর্তে কাউকেই পাশে পাওয়া গেল না। এমনকি আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশীদের কেউ আসলেন না।’ স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. জামাল উদ্দিন বলেন, ‘করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ায় নিয়ম মেনে দাফনের কথা বলায় স্থানীয়দের কেউ এগিয়ে আসেনি।’

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *